সংবাদ শিরোনাম

 

স্টাফ রিপোর্টার, ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম : ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জে রাজীবপুর-লাটিয়ামারী ব্রহ্মপুত্র নদের ঘাটে প্রতিদিন হাজার হাজার লোকজনের যাতায়েতের একমাত্র সড়ক দীর্ঘদিন সংস্কার কাজ না হওয়ায় চরম দূর্ভোগে পড়েছে। ওই এলাকার সবজি চাষী ও স্কুল-কলেজগামী শিক্ষার্থীরা। এই সড়কটি ব্যবহার করে প্রতিবছর সনাতন ধর্মাবলম্বীদের ব্রহ্মপুত্র নদের ঘাটে অষ্টমি স্নানে যায় পুণ্যার্থীরা। তাই সড়কটি সংস্কার এখন প্রাণের দাবী হয়ে উঠেছে এই এলাকার লোকজনের।
জানা যায়, উপজেলা রাজীবপুর-লাটিয়ামারী সড়কটি প্রাচীন কাল থেকে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের ও রাজিবপুর ইউনিয়নের চরাঞ্চলের সবজি চাষীদের কাছে যাতায়েতের জন্যে অত্যান্ত গুত্বপূর্ণ। এই সড়কটি দিয়ে প্রায় প্রতিদিনই ৪/৫টি ট্রাক ভর্তি সবজি দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে বিক্রয় করা হয়। কিন্তু বর্তমানে সড়কটির বেহাল দশার কারণে ওই চাষীদের সবজি ভ্যান, রিকসা দিয়ে রাজিবপুর বাজারে নিয়ে ট্রাকে উঠাতে হয়। ফলে কৃষকের উৎপাদিত সবজির ন্যায্য বাজার মূল্য পাচ্ছে না। বৃদ্ধি পাচ্ছে তাদের পরিবহন খরচ। প্রতিবছর হাজার হাজার সনাতন ধর্মাবলম্বী অষ্টমি স্নানের জন্যে ব্রহ্মপুত্র নদের ঘাটে যাতায়েতের একমাত্র এই সড়কটি সংস্কার কাজ না হওয়ায় গত কয়েক বছর যাবৎ পুণ্যার্থীদের চরম দূর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে।
গত বিএনপি জোট সরকার আমলে রাজীবপুর বাজার থেকে লাটিয়ামারী ব্রহ্মপুত্র নদে যাওয়ার প্রায় আড়াই কিলোমিটার সড়ক পাকা করে স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর (এলজিইডি)। গুরুত্বপূর্ণ সড়কটি দীর্ঘদিন ধরে সংস্কার কাজ হয়নি তাই রাস্তার কার্পেটিং উঠে গিয়ে বিভিন্ন স্থানে সৃষ্টি হয়েছে খানাখন্দের। তাই সড়কটি দ্রুত সংস্কারের দাবি জনপ্রতিনিধিসহ স্থানীয় এলাকাবাসীর।
রাজীবপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান একেএম মুদাববিরুল ইসলাম বলেন, রাজীবপুর-লাটিয়ামারী ব্রহ্মপুত্র নদের ঘাট পর্যন্ত সড়কটির বেহাল দশার কারনে এই অঞ্চলে হাজার হাজার কৃষকদের উৎপাদিত সবজির ন্যায্যমূল পাচ্ছে না। বিপাকে পড়েছে স্কুল-কলেজগামী শিক্ষার্থীরাও। সনাতন ধর্মাবলম্বীদের অষ্টমি স্নন, অষ্টমি মেলা ও পুণ্যস্নান উৎসব হয় লাটিয়ামারীতে। সড়কটির বেহাল অবস্থা থাকায় উৎসবে আসতে দুর্ভোগে পড়তে হয় তাদের। ওই অবস্থায় দ্রুত সড়কটি সংস্কারের দাবি জানান তিনি।
ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলা প্রকৌশলী সৈয়দ আবদুস সবুর বলেন, সড়কটি সংসদ সদস্যের বিশেষ বরাদ্দ আই.আর.আই.ডি.পি প্রকল্পের মাধ্যমে সংস্কার করার জন্য প্রস্তাব পাঠানো হয়েছে। অনুমোদন পেলেই সংস্কার কাজ করা হবে।


মতামত জানান :

 
 
আরও পড়ুন
 
কপিরাইট © ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | উন্নয়নে হোস্টপিও.কম