সংবাদ শিরোনাম

 

নিজস্ব প্রতিবেদক, টঙ্গী (গাজীপুর) প্রতিনিধি : গাজীপুরের টঙ্গীতে হরকাতুল জিহাদ নেতা মুফতি হান্নান ও তার সহযোগীদের বহনকারী প্রিজনভ্যানে হামলার অভিযোগে আরও একজনকে আটক করেছে টঙ্গী মডেল থানা পুলিশ। বাহিনীটি বলছে, ২৩ বছর বয়সী মোহাম্মদ সবুজের কাছ থেকে এমন একটি অস্ত্র পাওয়া গেছে যা অভিনব। এ ধরনের অস্ত্র কোনোদিন দেখেননি বলে জানিয়েছেন টঙ্গী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা।

মঙ্গলবার গভীর রাতে নরসিংদীর শেখের চর এলাকা থেকে আটক করা হয় ‘জঙ্গি’ মোহাম্মদ সবুজকে। তার কাছ থেকে অত্যাধুনিক ওই বিদেশি অস্ত্র ছাড়াও ১৫টি গুলি পাওয়া যায় বলে জানিয়েছে পুলিশ।

সবুজের কাছে পাওয়া অস্ত্রটির বিষয়ে টঙ্গী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ফিরোজ তালুকদার বলেন, ‘আমার চাকরির বয়সে এই প্রথম এধরনের অস্ত্র দেখলাম। চাবির রিং সম্বলিত অস্ত্রটি নিয়ে যে কেউ প্রকাশ্যে রাস্তায় ঘোরাফেরা করলেও বুঝার উপায় নেই এটি অস্ত্র কি না।’

এই পুলিশ কর্মকর্তা জানান, মুফতি হান্নানের প্রিজনভ্যানে হামলায় হাতেনাতে আটক মোস্তফা কামালকে রিমান্ডে এনে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। তার দেওয়া তথ্য মতে টঙ্গী মডেল থানা পুলিশের একটি বিশেষ দল সবুজকে গ্রেপ্তার করে।

সবুজকে টঙ্গী থানায় এনে জিজ্ঞাসাবাদ চলছে জানিয়ে ওসি বলেন, তাকে রিমান্ডে নেয়ার আবেদন করবেন তারা।

গত সোমবমার ব্রিটিশ হাইকমিশনার আনোয়ার চৌধুরী হত্যাচেষ্টা মামলায় ফাঁসির দ-প্রাপ্ত হরকাতুল জিহাদ নেতা মুফতি হান্নান ও তার সহযোগীসহ ১৯ আসামিকে ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলার হাজিরার জন্য কাশিমপুর কারাগার থেকে ঢাকায় আদালতে পাঠানো হয়। হাজিরা শেষে আসামিদের প্রিজনভ্যানে করে কাশিমপুর কারাগারে নেওয়ার পথে টঙ্গীতে হামলার চেষ্টা হয়।

ওই দিন বিকেল সাড়ে পাঁচটার দিকে টঙ্গীর কলেজগেট এলাকায় প্রিজনভ্যানটিকে লক্ষ্য করে হাতবোমা ছুঁড়ে সন্দেহভাজন জঙ্গিরা। এ সময় দুটি বোমা রাস্তায় পড়ে বিস্ফোরিত হয়। এ ঘটনায় কেউ আহত হয়নি এবং প্রিজভ্যানেও বোমা লাগেনি। পরে ঘটনাস্থল থেকে একটি গ্রেনেড, দুইটি পেট্রল বোমা, পাঁচটি হাত বোমা ও দুইটি চাপাতি উদ্ধার করে পুলিশ।

ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ বেশ কিছু অস্ত্রসহ মোস্তফা কামাল নামে একজনকে আটক করে। তিনি ওই হামলায় জড়িত ছিলেন জানিয়ে তাকে মঙ্গলবার তাকে পাঁচ দিনের রিমান্ডে নেয় পুলিশ।


মতামত জানান :

 
 
আরও পড়ুন
 
কপিরাইট © ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | উন্নয়নে হোস্টপিও.কম