সংবাদ শিরোনাম

 

ক্রীড়া প্রতিবেদক : তৃতীয় দিনের মতই ঘটলো একই ঘটনা। বৃষ্টির কারণে তৃতীয় দিন শেষ সেশনের পুরোটাই বাতিল ঘোষণা করতে হয়েছিল। চতুর্থ দিনে পুরো সেশন না হলেও অন্তত ১১ ওভার আগেই দিনের বাকি খেলা বাতিল ঘোষণা করতে বাধ্য হলেন ম্যাচ রেফারি অ্যান্ডি পাইক্রফট। তার আগে ৪৫৭ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে দ্বিতীয় ইনিংসে বাংলাদেশের সংগ্রহ কোনো উইকেট না হারিয়ে ৬৭ রান। তামিম ইকবাল ১৩ রানে এবং টি-টোয়েন্টি স্টাইলে ব্যাট করে ৫৩ রানে অপরাজিত রয়েছেন সৌম্য সরকার। বাংলাদেশ এখনও পিছিয়ে রয়েছে ৩৯০ রানে। হাতে রয়েছে পুরো ১০ উইকেট।

‘আগে যদি ১০০ ভাগ দিতাম তাহলে এখন থেকে ১২০ শতাংশ দিতে হবে’- এ কথাই গতকাল সংবাদ সম্মেলনে বলেছিলেন সৌম্য সরকার। বলার কারণও ছিল যথার্থ। কারণ গতকাল নিজের উইকেট বিলিয়ে দলকে বড় চাপেই ফেলেছিলেন তিনি। তবে সেটা কিছুটা লাঘব করলেন আজ (শুক্রবার)। দ্বিতীয় ইনিংসে ঝড়ো ব্যাটিং করে তুলে নিয়েছেন নিজের টেস্ট ক্যারিয়ারে তৃতীয় হাফ সেঞ্চুরি।

এদিন টেস্ট মেজাজে ব্যাট করেননি সৌম্য। নিজের স্বাভাবিক মেজাজেই ছিলেন এ ওপেনার। অনেকটা টি-টোয়েন্টি ঘরানার ব্যাটিং করছেন তিনি। মাত্র ৪৪ বলেই স্পর্শ করেছেন হাফ সেঞ্চুরি। নিজের হাফ সেঞ্চুরিটি সাজিয়েছেন ৬টি চার ও ১টি ছক্কায়।

তবে বাংলাদেশ এ মুহূর্তে সৌম্যর আক্রমণাত্মক ব্যাটিংয়ের চেয়ে ধৈর্যশীল ব্যাটিং চায়। কারণ ম্যাচ বাঁচাতে আজকের দিন তো বটেই আগামীকাল সারাদিন থাকতে হবে উইকেটে। তবে আগের দিনই প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন সৌম্য, সামনে আবার সুযোগ আসলে হাফ সেঞ্চুরিকে সেঞ্চুরিতে পরিণত করবেন তিনি। এখন দেখার বিষয় কত দূর নিতে পারেন নিজের ইনিংসকে।


মতামত জানান :

 
 
আরও পড়ুন
 
কপিরাইট © ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | উন্নয়নে হোস্টপিও.কম