সংবাদ শিরোনাম

 

নিজস্ব প্রতিবেদক, সিরাজগঞ্জ : আগামী সংসদ নির্বাচনে অংশ নিতে বিএনপিতে তাগাদা দিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম। তিনি বলেন, গত নির্বাচনে বিএনপি ভোট বর্জন করায় প্রতিদ্বন্দ্বিতা হয়নি। আগামী নির্বাচনে যেন এমন না হয়। খালি মাঠে খেলতে ভালো লাগে না জানিয়ে তিনি বলেন, ‘নির্বাচনে আসুন, খেলা হবে মাঠে।’

শুক্রবার বিকালে সিরাজগঞ্জের রায়গঞ্জে চান্দাইকোনা হাজী ওয়াহেদ মরিয়ম কলেজ মাঠে ‘রক্তাক্ত ভূইয়াগাতী দিবস’ স্মরণে আয়োজিত স্মরণসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেছেন নাসিম। ১৯৯৬ সালে আওয়ামী লীগসহ বেশ কিছু দলের বর্জনের মুখে ১৫ ফেব্রুয়ারির নির্বাচনের পর আন্দোলনে ৬ মার্চ গুলিতে ভূইয়াগাতীতে ছাত্রনেতা জসমত, আনন্দ, রানা ও বুলবুল শহীদ হয়। তাদের স্মরণে রায়গঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগ এই স্মরণ সভার আয়োজন করে।
নাসিম বলেন, ২০১৯ সালের নির্বাচন বাধাগ্রস্ত করার জন্য বিএনপি আবারও নানা ধরনের ষড়যন্ত্রে মাঠে নেমেছে। নির্বাচন কমিশন সম্পর্কে অযৌক্তিক মন্তব্য করে ষড়যন্ত্রের জাল বুনছে। তাদের এ ষড়যন্ত্র প্রতিহত করার জন্য দলীয় নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধভাবে মাঠে থাকতে হবে। তিনি বলেন, দেশের অব্যাহত উন্নয়ন এবং জনগনের মন জয় করেই শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আওয়ামীলীগ আবারও বিজয়ী হবে। কোন ষড়যন্ত্রই এ বিজয়কে বাধাগ্রস্ত করতে পারবে না।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অধীনেই আগামী নির্বাচন হবে জানিয়ে নাসিম বলেন, নির্বাচনের জন্য অন্য কোন ফর্মুলা দিয়ে লাভ নেই। তিনি বলেন রাষ্ট্রপতি একজন সৎ ও যোগ্য ব্যক্তিকে প্রধান নির্বাচন কমিশনার নিয়োগ করেছেন। নির্বাচন কমিশন নিরপেক্ষ ও দক্ষ রেফারি হিসেবে ভোট পরিচালনা করবে। এ ভোটের জয় পরাজয় মহাজোট মেনে নেবে।

বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ অন্ধকার থেকে আলোর পথে যাত্রা শুরু করেছে বলে দাবি করেন নাসিম। তিনি বলেন, বিশ্বের বুকে উন্নয়নের রোল মডেল হিসেবে মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়েছে। ২০২১ সাল নাগাদ বাংলাদেশ মধ্যম আয়ের দেশ হবে।

বিএনপির সমালোচনা করে নাসিম বলেন, ‘আওয়ামী লীগের রাজনীতির অধ্যায় হচ্ছে শুধু উন্নয়ন আর উন্নয়ন। অপরদিকে বিএনপির রাজনীতি হচ্ছে জ্বালাও পোড়াও, মানুষ হত্যা লুটপাট রাজনীতি।’

রায়গঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি গোলাম হোসেন শোভন সরকারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত স্মরণ সভায় প্রধান বক্তা ছিলেন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক খালিদ মাহমুদ চৌধুরী। বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল লতিফ বিশ্বাস, জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক সংসদ সদস্য হাবিবে মিল্লাত মুন্না, সংসদ সদস্য গাজী ম ম আমজাদ হোসেন মিলন, হাবিবুর রহমান হাবিব প্রমুখ।

এর আগে সকালে মোহাম্মদ নাসিম সিরাজগঞ্জের শিয়ালকোলে নির্মাণাধীন শহীদ এম মনসুর আলী মেডিকেল কলেজের নির্মাণ কাজের অগ্রগতি পরিদর্শন করেন এবং দ্রুততম সময়ের মধ্যে নির্মাণ কাজ শেষ করার নির্দেশ দেন।


মতামত জানান :

 
 
আরও পড়ুন
 
কপিরাইট © ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | উন্নয়নে হোস্টপিও.কম