সংবাদ শিরোনাম

 

শেরপুর প্রতিনিধি : শেরপুরে চাঞ্চল্যকর সৎ মা হত্যা মামলার রায়ে ছেলে সারোয়ার হোসেন সবুজ ওরফে বাবুকে (২৭) যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। সেই সঙ্গে ১০ হাজার টাকা জরিমানা এবং অনাদায়ে আরও ৬ মাসের সশ্রম কারাদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন। সোমবার (১৩ মার্চ) দুপুরে শেরপুরের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ মোহাম্মদ মোসলেহ্ উদ্দিন এ দণ্ডাদেশ দেন।

সারোয়ার নালিতাবাড়ী উপজেলার যোগানিয়া কান্দাপাড়া এলাকার হযরত আলীর ছেলে। ঘটনার পর থেকেই বাবু কারাগারে রয়েছেন।

অতিরিক্ত পিপি অ্যাডভোকেট ইমাম হোসেন ঠান্ডু জানান, ২০১১ সালের ২১ সেপ্টেম্বর সকালে নালিতাবাড়ী উপজেলার যোগানিয়া কান্দাপাড়া এলাকার গৃহকর্তা হযরত আলী বাড়িতে না থাকার সুযোগে তার দ্বিতীয় স্ত্রী তিন সন্তানের জননী রাশিদা বেগমকে প্রথম স্ত্রীর সন্তান সারোয়ার হোসেন সবুজ ওরফে বাবু তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে কুঁপিয়ে হত্যার পর রশি দিয়ে বেঁধে বাড়ির পাশের ধান ক্ষেতে নিয়ে খড় দিয়ে ঢেকে রাখেন। ওই ঘটনায় রাশিদার বড়ভাই রজব আলী বাদি হয়ে নালিতাবাড়ী থানায় বাবুসহ ৫ জনের বিরুদ্ধে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

মামলার পরদিন ২২ সেপ্টেম্বর থানা পুলিশের হাতে গ্রেফতার হয়ে বাবু আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন। তদন্ত শেষে একই বছরের ১৫ ডিসেম্বর একমাত্র বাবুর বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন তদন্ত কর্মকর্তা এসআই মোখলেসুর রহমান।

মামলার দীর্ঘ বিচারিক প্রক্রিয়ায় বাদি, আসামির জবানবন্দি গ্রহণকারী ম্যাজিস্ট্রেট, চিকিৎসকসহ ১১ জন স্বাক্ষীর স্বাক্ষ্যগ্রহণ শেষে অভিযোগ সন্দোহাতীতভাবে প্রমাণিত হওয়ায় বাবুর বিরুদ্ধে সোমবার এই রায় ঘোষণা করা হয়।

মামলাটি রাষ্ট্রপক্ষে অতিরিক্ত পিপি অ্যাডভোকেট ইমাম হোসেন ঠান্ডু ও আসামি পক্ষে অ্যাডভোকেট পংকজ কুমার নন্দী পরিচালনা করেন।


মতামত জানান :

 
 
আরও পড়ুন
 
কপিরাইট © ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | উন্নয়নে হোস্টপিও.কম