সংবাদ শিরোনাম

 

নিজস্ব প্রতিবেদক : নিজের এলাকা দুর্গম হাওরাঞ্চলে গাড়িতে চড়ার স্বপ্ন রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদের দীর্ঘদিনের। সেই স্বপ্ন পূরণ হলো। চার চাকার একটি জিপে যাত্রী হয়ে এই প্রথম হাওরের কোনো পথে ঘুরতে দেখা গেল রাষ্ট্রপ্রধান আব্দুল হামিদকে। আর এ সময় চালকের আসনে ছিলেন তার ছেলে রেজওয়ান আহমেদ তৌফিক। খবর বাসসের।

রাষ্ট্রপতির প্রেস সচিব জয়নাল আবেদিন জানান, আব্দুল হামিদ আজ একটি জিপে করে কিশোরগঞ্জের দুর্গম উপজেলা অষ্টগ্রামের প্রত্যন্ত এলাকা সফর করেন। এ সময় জিপটি চালাচ্ছিলেন তার ছেলে আওয়ামী লীগ দলীয় সংসদ সদস্য রেজওয়ান আহমেদ তৌফিক। তিনি ইটনা ও মিঠামইনের বিভিন্ন এলাকায় প্রায় দেড় ঘণ্টা ধরে জিপটি চালান।

বঙ্গভবনের মুখপাত্র জানান, সাধারণত রাষ্ট্রপতির গাড়ি বহরে জিপ থাকে না। কিন্তু একটি স্থানীয় হাসপাতালের ব্যবহারের জন্য বিশেষ ব্যবস্থায় সম্প্রতি আনা হয় এই জিপটি। যাতে এবারই প্রথম রাষ্ট্রপতি চড়ে এই এ অঞ্চলের অমসৃণ পথে ভ্রমণ করলেন।

জয়নাল আবেদিন বলেন, ‘তিনি বেলা ১টা থেকে আড়াইটা পর্যন্ত আশপাশের এলাকা ঘুরেন। এ সময় গ্রামবাসীরা এই মাটির সন্তানকে ব্যাপকভাবে অভিনন্দিত করে। রাষ্ট্রপতি তাদের সঙ্গে কথা বলেন এবং তাদের খোঁজখবর নেন।’

কর্মকর্তারা জানান, এই জিপটি একটি স্থানীয় হাসপাতালের ব্যবহারের জন্য সম্প্রতি অষ্টগ্রামে আনা হয়। কিন্তু অপর্যাপ্ত সড়ক অবকাঠামোর কারণে এটি হাওর অঞ্চলের রাস্তায় চলাচলে সমস্যা হচ্ছিল।

তারা আরও জানান, সম্প্রতি তিন কিলোমিটার সড়ক নির্মিত হওয়ায় জিপটি যথেষ্ট ঝুঁকি-ঝামেলা ছাড়াই চলাচল করতে পেরেছে।

জয়নাল আবেদিন জানান, পরে রাষ্ট্রপতি সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের মান বজায় রেখে নির্ধারিত সময়ের মধ্যে যোগাযোগ অবকাঠামোর বিভিন্ন নির্মাণ কাজ সম্পন্ন করার নির্দেশ দেন।

‘হাওরের শার্দুল’ খ্যাত রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদের বাড়ি কিশোরগঞ্জের মিঠামইনে। তিনি কিশোরগঞ্জ-৪ (ইটনা-মিঠামইন-অষ্টগ্রাম) আসন থেকে সাতবার সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। রাষ্ট্রপতি হওয়ার পর তাঁর ছেড়ে দেয়া আসনে এমপি হয়েছেন বড় ছেলে রেজওয়ান আহমেদ তৌফিক। নিজ এলাকায় তিন দিনের সফর শেষে বুধবার রাষ্ট্রপতি বঙ্গভবনে ফিরেছেন।


মতামত জানান :

 
 
আরও পড়ুন
 
কপিরাইট © ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | উন্নয়নে হোস্টপিও.কম