সংবাদ শিরোনাম

 

নিজস্ব প্রতিবেদক : বিচার বিভাগ নিয়ে একটি মহল সরকারকে ভুল রিপোর্ট দিচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা।

তিনি বলেন, বিচার বিভাগ ও সরকারের মধ্যে ভুল বোঝাবুঝির সৃষ্টি হলে তাতে সরকারই ক্ষতিগ্রস্ত হবে। ভবিষ্যতে বিচার বিভাগের সঙ্গে সরকারের ভুল বোঝাবুঝির অবসান হবে বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি।

শনিবার দুপুরে বিচার প্রশাসন প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউটে বাংলাদেশ জুডিশিয়াল সার্ভিস (বিজেএস) কমিশনের অনলাইন অ্যাপ্লিকেশন রেজিস্ট্রেশন সিস্টেম উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

প্রধান বিচারপতি বলেন, বিচার বিভাগ সরকারের প্রতিপক্ষ নয়। তবে যেকোনো রাজনৈতিক সরকারের কর্মকাণ্ডে শাসনতন্ত্রের যদি লঙ্ঘন হয়, সেক্ষেত্রে বিচার বিভাগ এগিয়ে আসবে।

সুরেন্দ্র কুমার বলেন, বিচার বিভাগ যদি স্বাধীনভাবে কাজ করতে পারে, তাহলে বর্তমানে দেশে যে দুর্নীতি-অপরাধ প্রবণতা বিরাজ করছে তা অনেকাংশে কমে যাবে।

বিচারকদের শূন্য আসন পূরণ না হওয়ায় মামলাজট বেড়ে অচলাবস্থার সৃষ্টি হয়েছে বলেও মন্তব্য করেন প্রধান বিচারপতি।

পরে তিনি বাংলাদেশ জুডিশিয়াল সার্ভিস (বিজেএস) কমিশনের অনলাইন অ্যাপ্লিকেশন রেজিস্ট্রেশন সিস্টেম উদ্বোধন করেন।

জুডিশিয়াল পরীক্ষায় অংশ নিতে এখন থেকে www.bjsc.gov.bd এই ওয়েবসাইটের মাধ্যমে দেশ ও বিদেশের যেকোনো স্থান থেকে অনলাইনে রেজিস্ট্রেশন করতে পারবেন পরীক্ষার্থীরা।

জুডিশিয়াল সার্ভিসে প্রবেশে ১১তম বিজেএস পরীক্ষার জন্য গত ১ মার্চ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়েছে। বিজ্ঞপ্তিতে ১৪৩টি পদের কথা উল্লেখ করা হয়েছে। আগামী ২০ মার্চ থেকে ১৬ এপ্রিল পর্যন্ত অনলাইনে আবেদন করতে পারবেন পরীক্ষার্থীরা।

বাংলাদেশ জুডিশিয়াল সার্ভিস কমিশনের চেয়ারম্যান ও আপিল বিভাগের বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকীর সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন আপিল বিভাগের জ্যেষ্ঠ বিচারপতি আবদুল ওয়াহহাব মিয়া, বিচার প্রশাসন প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউটের মহাপরিচালক বিচারপতি খোন্দকার মূসা খালেদ, অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম, জাতিসংঘ উন্নয়ন কর্মসূচির কান্ট্রি ডিরেক্টর সুদীপ্ত মুখার্জি, বাংলাদেশ জুডিশিয়াল সার্ভিস কমিশনের সচিব পরেশ চন্দ্র শর্মা।


মতামত জানান :

 
 
আরও পড়ুন
 
কপিরাইট © ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | উন্নয়নে হোস্টপিও.কম