সংবাদ শিরোনাম

 

নিজস্ব প্রতিবেদক : শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ আজ বলেছেন, উচ্চশিক্ষা কেবল যেন আনুষ্ঠানিক বিদ্যায় পরিণত না হয়, সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার পরিবেশ এবং গুণগত মান বৃদ্ধির জন্য প্রচেষ্টা চালিয়ে যেতে হবে। এ জন্য বিষয় বাছাই, শিক্ষাক্রম উন্নয়ন এবং শিক্ষাদানের পদ্ধতি অব্যাহতভাবে উন্নত ও যুগোপযোগী করতে হবে।
শিক্ষামন্ত্রী আজ ঢাকায় বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে সাউথইস্ট ইউনিভাসির্টির ৬ষ্ঠ সমাবর্তন অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তৃতায় একথা বলেন।
এবারের সমাবর্তন বক্তা ছিলেন ভারতের নয়াদিল্লীতে অবস্থিত সাউথ এশিয়ান ইউনিভার্সিটির প্রেসিডেন্ট অধ্যাপক ড. কবিতা এ. শর্মা।
সমাবর্তনে অন্যান্যের মধ্যে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. এএনএম মেশকাত উদ্দিন এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রাস্টি বোর্ডের চেয়ারম্যান মো. রেজাউল করিম বক্তৃতা করেন।
শিক্ষা মন্ত্রী বলেন, আমরা দেশের বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে ব্যর্থ হতে দিতে চাই না। সেগুলোকে বন্ধ করে দেয়া আমাদের উদ্দেশ্য নয়। আমরা তাদের সফল করার জন্য সর্বাত্মক চেষ্টা করে যাচ্ছি। যারা আইন বিধিবিধান মানতে চান না, তাদের আইনী পথে বাতিল করা হবে।
তিনি দেশের বাস্তবতা এবং জনগণের আর্থ-সামাজিক অবস্থা বিবেচনা করে শিক্ষার্থীদের ভর্তি ও টিউশন ফিসহ সকল প্রকার ব্যয় একটি সীমা পর্যন্ত নির্ধারিত রাখতে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর প্রতি আহবান জানান।
মন্ত্রী বলেন, শিক্ষা ও প্রশিক্ষণের মাধ্যমে স্থিতিশীল উন্নয়ন নিশ্চিত করতে বহুমাত্রিক শিক্ষা কার্যক্রমের সাথে শিক্ষার্থীদেরকে সম্পৃক্ত করার যথোপযুক্ত পরিকল্পনা বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর থাকতে হবে । বৈজ্ঞানিক, প্রযুক্তিগত ও তথ্য বিপ্লবের সুযোগ গ্রহণ করে তাদেরকে যুগোপযোগী মানবসম্পদে পরিণত করতে হবে।
শিক্ষার্থীরা যাতে ইসলামের ভুল ব্যাখ্যা দানকারী জঙ্গিদের কবলে পড়ে জীবন ধ্বংস না করে সেদিকে শিক্ষক-অভিবাবকদের সজাগ দৃষ্টি রাখারও আহবান জানান মন্ত্রী।
সমাবর্তনে ২৬৮৮ জন শিক্ষার্থীকে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর ডিগ্রী প্রদান করা হয়। শিক্ষামন্ত্রী একজন শিক্ষার্থীর হাতে চ্যান্সেলর স্বর্নপদক ও ১১ জন শিক্ষার্থীকে ভাইস চ্যান্সেলর স্বর্ণপদক প্রদান করেন।


মতামত জানান :

 
 
আরও পড়ুন
 
কপিরাইট © ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | উন্নয়নে হোস্টপিও.কম