সংবাদ শিরোনাম

 

নিজস্ব প্রতিবেদক : তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেছেন, ডিজিটাল বাংলাদেশের রূপকল্প বাস্তবায়নের লক্ষ্যকে সামনে রেখে সরকার একুশ শতকের উপযোগী দক্ষ মানব সম্পদ গড়ে তুলছে। তারই ধারাবাহিকতায় বিশ্বমানের প্রশিক্ষণের মাধ্যমে তথ্যপ্রযুক্তি খাতে প্রশিক্ষিত জনবল তৈরী করছে বর্তমান সরকার ।

তিনি বলেন, এ জনবল দ্বারা ২০২১ সালের মধ্যে পাঁচ বিলিয়ন ডলার অর্জিত হবে। আর এ ক্ষেত্রে চলনবিল অধ্যুষিত সিংড়া উপজেলা হবে তথ্য প্রযুক্তির মিনি সিঙ্গাপুর।

শনিবার দুপুরে সিংড়া গোল-ই-আফরোজ সরকারি কলেজ চত্বরে এলআইসিটি প্রকল্পের আওতায় আইসিটি ক্যারিয়ার ক্যাম্প অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় প্রতিমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

তিনি জানান, সারাদেশে ২৮টি হাইটেক পার্কে ২০ লাখ তরুণদের কর্মসংস্থান হবে। এর মধ্যে সিংড়ায় প্রায় দেড় কোটি টাকা ব্যয়ে হাইটেক পার্ক, ৩৭ লাখ টাকা ব্যয়ে ইনকিউবেশন সেন্টার, ৩৩ লাখ টাকা ব্যয়ে কারিগরি কলেজ প্রতিষ্ঠিত হবে।

তিনি আরো বলেন, সিংড়ায় ২০ হাজার তরুণ-তরুণীর কর্মসংস্থান হবে। এ জন্য প্রযুক্তিতে শিক্ষার্থীদের দক্ষ হতে হবে। চলনবিল তথ্য প্রযুক্তির মিনি সিংগাপুরে রূপান্তরিত করতে শেখ হাসিনা সরকার কাজ করে যাচ্ছে। আগামী ২০১৮ সালের মধ্যে সারা দেশে সাড়ে চার হাজার ইউনিয়ন পরিষদে হাইস্পিড ইন্টারনেট সংযোগ পৌঁছে দেওয়া হবে।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, ইতোমধ্যে দেশে পাঁচ হাজার ২২৭ টি ডিজিটাল সেন্টারের মাধ্যমে ৬০ লাখ মানুষকে সেবা দেওয়া হচ্ছে। এতে করে মানুষ আর দুর্নীতি, হয়রানি ও অর্থ অপচয়ের শিকার হচ্ছেন না। ই-গভর্নেন্স প্রতিষ্ঠার পর মানুষকে আর শহরে যেতে হয় না। আর কাউকে প্রতারণা ও হয়রানির শিকার হতে হয় না।

অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন আইসিটি প্রজেক্ট ডিরেক্টর রেজাউল করিম, এলআইসিটি কম্পোনেন্ট টিম লিডার সামি আহমেদ, উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি অ্যাডভোকেট ওহিদুর রহমান, পৌরসভার মেয়র জান্নাতুল ফেরদৌস প্রমুখ।

কম্পিউটার কাউন্সিলের লিভারেজিং আইসিটি ফর গ্রোথ গভর্নেন্স (এলআইসিটি) প্রকল্প আয়োজিত আইসিটি ক্যারিয়ার ক্যাম্পে ১৬টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের এক হাজার ৮৩০ জন শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করেন।


মতামত জানান :

 
 
 
কপিরাইট © ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | উন্নয়নে হোস্টপিও.কম