সংবাদ শিরোনাম

 

মির্জাপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি : ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে আজও ভয়াবহ যানজট দেখা দিয়েছে। রবিবার সকাল থেকে এই যানজট দেখা দেয়। যানজটে আটকা পড়ে হাজার হাজার যাত্রীকে চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে।

গত শুক্রবার থেকে শুরু হওয়া টানা বর্ষণে পুরো মহাসড়ক কর্দমাক্ত হওয়ায় এই যানজটের সৃষ্টি হয়। রাস্তা কর্দমাক্ত থাকার কারণে যানবাহনের চাকা দেবে যায়। শত চেষ্টা করেও মহাসড়কে যান চলাচল স্বাভাবিক রাখা সম্ভভ হচ্ছে না বলে পুলিশ জানিয়েছে।

জানা গেছে, মহাসড়কের কালিয়াকৈরের চন্দ্রা থেকে টাঙ্গাইলের এলেঙ্গা পর্যন্ত প্রায় ৬০ কিলোমিটার এলাকায় এই যানজট দেখা দিয়েছে। কিছু সময়ের জন্য গাড়ি চলাচল করলেও একটু পরে আবারও থেকে যায়। এতে চরম ভোগান্তিতে পড়তে হয়েছে মহাসড়কে চলাচলকারী হাজারো যাত্রীকে।

যানজটের বর্ণনা দিতে গিয়ে টাঙ্গাইলগামী ট্রাকচালক মিলন মিয়া এবং তৌসিয়া গ্রুপের কাভার্ড ভ্যান চালক রিপন মিয়া জানান, কালিয়াকৈর থেকে মির্জাপুর ১০ কিলোমিটার রাস্তা আসতে তাদের সময় লেগেছে চার ঘণ্টা।

একই কথা জানালেন ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা বিনিময় পরিবহন সার্ভিসের বাস চালক মদন মিয়াও।

চালকরা জানান, সাইট দিতে গিয়ে যানবাহনের চাকা দেবে যাচ্ছে। এজন্য মহাসড়কে যানজটের সৃষ্টি হচ্ছে।

রবিবার দুপুরে মহাসড়কের বিভিন্ন এলাকায় ঘুরে যানজটের এই দৃশ্য দেখা গেছে। অবশ্য কোথাও কোথাও যানবাহনের চাকা সচল হলেও পাঁচ মিনিট পরেই তা আবার অচল হয়ে পড়ছে।

মির্জাপুরের গোড়াই হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা খলিলুর রহমান জানান, তিন দিনের টানা বর্ষণের কারণে মহাসড়কে যে বেহাল অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে সেজন্য যানজট সামলানো সম্ভব হচ্ছে না। মহাসড়কে যান চলাচল স্বাভাবিক রাখতে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী আপ্রাণ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে বলে তিনি জানান।


মতামত জানান :

 
 
আরও পড়ুন
 
কপিরাইট © ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | উন্নয়নে হোস্টপিও.কম