সংবাদ শিরোনাম

 

শামীম খান, গৌরীপুর ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম : প্রাইভেট না পড়ায় তিন শিক্ষার্থীকে মারধরের ঘটনায় জড়িত শিক্ষকের বিচারের দাবিতে ময়মনসিংহের গৌরীপুর সরকারি টেকনিক্যাল স্কুল ও কলেজের বিক্ষুব্দ শিক্ষার্থীরা রবিবার (২২ অক্টোবর) দুপুরে ইউএনও অফিস ঘেরাও করে। এসময় উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার সাইফুল আলম এ ঘটনার তদন্ত সাপেক্ষে সাত দিনের মধ্য ব্যবস্থা গ্রহনের আশ্বাস দিলে শিক্ষার্থীরা তাদের বিক্ষোভ কর্মসূচী স্থগিত করে। উল্লেখ্য প্রাইভেট না পড়ায় তিন শিক্ষার্থীকে ক্লাস রুমে বেধড়ক মারধরের অভিযোগ ওঠেছে উল্লেখিত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ফার্ম মেশিনারী ট্রেডের শিক্ষক গোপাল চন্দ্র সাহার বিরুদ্ধে। বুধবার (১৮ অক্টোবর) দুুপুরে ময়মনসিংহের গৌরীপুর সরকারি টেকনিক্যাল স্কুল ও কলেজে এ ঘটনাটি ঘটে। শিক্ষকের মারধরে আহতরা হলো ওই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ফার্ম মেশিনারী ট্রেডের দশম শ্রেণীর শিক্ষার্থী দিদার খান পাঠান, ইয়াছিন ও এমএ মোমেন। এব্যাপারে গৌরীপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবরে ওই দিনই লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে ভূক্তভোগী শিক্ষার্থীরা। শিক্ষার্থী দিদার খান পাঠান সাংবাদিকদের জানায়, ফার্ম মেশিনারী ট্রেড ইন্সট্রাক্টর গোপাল চন্দ্র সাহা স্যার তাঁর নিকট প্রাইভেট পড়ার জন্য আগে থেকেই তাদেরকে চাপ প্রয়োগ করে আসছিল। প্রাইভেট না পড়লে তাদের পরীক্ষায় হাতে থাকা মার্ক কম দিয়ে ফেল করিয়ে দিবেন বলে এরকম হুমকীও প্রদান করেন তিনি। ঘটনারদিন দুপুরে ক্লাসরুমে তুচ্ছ অজুহাতে আমাদের তিন জনকে এলোপাতারীভাবে কিল-ঘুষি মেরে আহত করেন স্যার। এঘটনায় গোপাল চন্দ্র সাহা সাংবাদিকদের জানান, উল্লেখিত তিন শিক্ষার্থী ক্লাসরুমে যথাসময়ে উপস্থিত না হওয়ায় তাদেরকে শাসন করেছিলাম। এর সাথে প্রাইভেট পড়ানো বিষয়ে কোন ঘটনার সম্পৃক্ততা নেই। উপজেলা নির্বাহী অফিসার মর্জিনা আক্তার জানান, উক্ত বিষয়ে অভিযোগ পেয়েছি। ঘটনাটি তদন্তের জন্য উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসারকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে।


মতামত জানান :

 
 
আরও পড়ুন
 
কপিরাইট © ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | উন্নয়নে হোস্টপিও.কম