সংবাদ শিরোনাম

 

শেরপুর প্রতিনিধি : শেরপুরের নকলা উপজেলার চন্দ্রকোণা বাজার থেকে বিস্ফোরক মামলার প্রধান আসামি ও নব্য জেএমবির সদস্য আবুল কাশেম ওরফে আবু মোসাবকে (২২) গ্রেফেতার করেছে পুলিশ।

রবিবার রাত পৌনে ৯টার দিকে শেরপুর জেলা পুলিশের একটি বিশেষ দল রবিবার টাঙ্গাইল জেলার কালিহাতি থানার এলেঙ্গা বাসস্ট্যান্ড এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। পুলিশ সুপার রফিকুল হাসান গণি এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

পুলিশ সুপার জানান, দুপুর পৌনে একটার দিকে টাঙ্গাইল জেলার এলেঙ্গা নামক স্থান থেকে শেরপুর জেলা পুলিশের একটি বিশেষ আভিযানিক দল তাকে গ্রেফতার করে।

গত ৫ অক্টোবর নকলা উপজেলার চন্দ্রকোণা বাজার থেকে ১৯ কন্টেইনার ভর্তি বিপুল পরিমাণ বিস্ফোরক তৈরির রাসায়নি উদ্ধার করার পর থেকে আবুল কাশেম পলাতক ছিল। পুলিশ হেডকোয়ার্টাসের প্রযুক্তিগত সহায়তায় চাপাইনবাবগঞ্জ থেকে বাসে ঢাকা আসার পথে তাকে টাঙ্গাইলের এলেঙ্গা নামক এলাকায় গ্রেফতার করা হয়।

নকলার হুজুরীকান্দা গ্রামের মৃত ছাফিল উদ্দিনের ছেলে আবুল কাশেম ওষুধ ব্যবসার আড়ালে জেএমবি কর্মকাণ্ডে জড়িয়ে পড়েন। তিনি নব্য জেএমবির সদস্য বলে স্বীকার করেছেন। তার সাংগঠনিক নাম ‘আবু মোসাব’ বলে জানিয়েছেন।

পুলিশ সুপার বলেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সে আমাদের জানিয়েছে ২০১৫ সালে ফেসবুকের মাধ্যমে দুই জঙ্গীর মাধ্যমে পরিচয় হয়। তাদের সঙ্গে ঘনিষ্ঠতার একপর্যায়ে ফেসবুক ছেড়ে বিশেষভাবে তৈরি এনকোডেড মোবাইল অ্যাপসের (ফিমা) মাধ্যমে যোগাযোগ অব্যাহত থাকে।


মতামত জানান :

 
 
আরও পড়ুন
 
কপিরাইট © ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | উন্নয়নে হোস্টপিও.কম