সংবাদ শিরোনাম

 

নিজস্ব প্রতিবেদক : প্রজনন মৌসুমে মা ইলিশ ধরার ২২ দিনের নিষেধাজ্ঞা শেষ হয়েছে রোববার মধ্যরাতে। সোমবার সকালেই কুয়াকাটার মৎস্য বন্দর আলীপুর-মহিপুরসহ উপকূলের কয়েক হাজার মাছ ধরার ট্রলার গভীর সমুদ্রে ইলিশের সন্ধানে নেমে পড়েছে। আবারও শুরু হবে ইলিশ শিকারের উৎসব। জালে ধরা পড়বে ঝাঁকে ঝাঁকে রূপালি ইলিশ। ফের সরগরম হয়ে উঠবে জেলে পল্লী এমনটাই জানিয়েছেন ইলিশ ব্যবসায়ীরা।

অবরোধের ২২ দিন জেলেরা তীরে বসে পুরানো জাল, ট্রলার মেরামত করে প্রস্তুতি নিয়েছে। গত কয়েক দিনের বৈরী আবহাওয়ার কারণে কিছুটা হলেও শঙ্কিত ছিল জেলে ও ট্রলার মালিকরা। কিন্তু অবরোধ শেষে জেলেদের পাশাপাশি আবহাওয়াও ইলিশ শিকারে প্রস্তুত।

 

তবে এলাকায় বরফের কিছুটা সংকট দেখা দিয়েছে। নিয়ম অনুযায়ী ৪৮ ঘণ্টা আগে বরফকল চালু করা হয়েছে। কিন্তু দূর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ার কারণে বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন থাকায় এ সংকট দেখা দেয়। যার ফলে ট্রলার মালিকদের খুলনাসহ বিভিন্ন এলাকা থেকে ট্রাকযোগে বরফ আনতে হয়েছে।

এ বিষয়ে কথা হয় ট্রলার মাঝি রুহুল আমিনের সঙ্গে। তিনি ঘাট থেকে ট্রলার ছেড়ে যাচ্ছেন এমন সময় বলেন, অবরোধের আগে সাগরে প্রচুর ইলিশ ধরা পড়েছে। আশা করছি এখনও সাগরে ইলিশ আছে।

কলাপাড়া উপজেলা মাঝি সমিতির সভাপতি নুরু মাঝি বলেন, বরফের সংকট থাকায় এখনও বেশ কিছু ট্রলার সাগরে যেতে পারেনি, আশা করছি মঙ্গলবার সকালের মধ্যে সবগুলো ট্রলার মাছ ধরতে যাবে।

কুয়াকাটা আলীপুর মৎস্য আড়তদার সমিতির সভাপতি আনছার উদ্দিন মোল্লা বলেন, আবহাওয়া ভালো থাকায় এখানকার মাছধরা ট্রলারগুলো সোমবার সকাল থেকে গভীর সমুদ্রে ইলিশের সন্ধানে চলে গেছে।


মতামত জানান :

 
 
 
কপিরাইট © ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | উন্নয়নে হোস্টপিও.কম