সংবাদ শিরোনাম

 

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি : জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসের আনাচে-কানাচে চোখে পড়ছে অসংখ্য কুকুর। কুকুরের উৎপাতে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা ব্যাপক আতঙ্কে রয়েছেন।

এসব দেশীয় কুকুর প্রায়ই ঘেউ ঘেউ করে কামড় দিতে আসে। বিশ্ববিদ্যালয়ের একাধিক শিক্ষার্থী ক্যাম্পাসে কুকুরের আঘাতে ভ্যাকসিনও নিয়েছেন।

সরেজমিনে দেখা গেছে, সারা বছর কুকুর না থাকলেও প্রজননের মৌসুমে ক্যাম্পাসের বিভিন্ন স্থানে কুকুর চোখে পড়ে। এসব কুকুর যেখানে-সেখানে যখন-তখন ঘেউ ঘেউ করে কামড় দিতে আসে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী নিলয় মাহমুদ রুবেল জানান, বিশ্ববিদ্যালয়ের এক সাথে দশটি দেশীয় কুকুর দেখেছি। তখন আমার বান্ধবী কুকুর দেখে ভয়ে দৌড়ে পালিয়েছে। এ ব্যাপারে প্রশাসনের উচিত দ্রুত কুকুর নিধন করা।

বিশ্ববিদ্যালয়ের মেডিকেল সেন্টারে খোঁজ নিয়ে জানা যায়, মেডিকেল সেন্টারে জলাতঙ্ক রোগের প্রতিষেধক কোনো ভ্যাকসিন নেই।

এ ব্যাপারে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ড. জাহিদুল কবীর জানান, প্রজননের মৌসুম থাকায় কুকুর ব্যাপকভাবে দেখা যাচ্ছে। ক্যাম্পাসে কুকুরের উৎপাত নিধনে আমরা দ্রুত যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করব।


মতামত জানান :

 
 
 
কপিরাইট © ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | উন্নয়নে হোস্টপিও.কম