সংবাদ শিরোনাম

 

নিজস্ব প্রতিবেদক : যানজট কমাতে সবাইকে ট্রাফিক আইন মেনে চলতে আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বৃহস্পতিবার (২৬ অক্টোবর) দুপুরে গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে মালিবাগ-মৌচাক ফ্লাইওভার উদ্বোধনকালে প্রধানমন্ত্রী এ আহ্বান জানান।

মালিবাগ-মৌচাক ফ্লাইওভার উদ্বোধন করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ওই ফ্লাইওভার যানজট নিরসনে বিরাট ভূমিকা রাখবে, মানুষের জীবনমান উন্নত করবো। সময় বাঁচাবে, কর্মচাঞ্চল্য বাড়াবে। এসময় ফ্লাইওভার ও সড়ক ব্যবহারে সবাইকে যত্নবান হওয়ারও পরামর্শ দেন তিনি।

মেয়র হানিফ ফ্লাইওভার, কুড়িল ফ্লাইওভার, জিল্লুর রহমান ফ্লাইওভার, হাতিরঝিল প্রকল্পসহ যানজট নিরসনে সরকারের বিভিন্ন পদক্ষেপের কথা তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রী বলেন, যানজট প্রশমনে বিভিন্ন কর্মসূচি বাস্তবায়ন করে যাচ্ছে সরকার। মানুষের জীবনমান এবং অর্থনৈতিক উন্নতির সঙ্গে গাড়ির ব্যবহার বাড়ায় যানজট বৃদ্ধির কারণের কথা উল্লেখ করেন প্রধানমন্ত্রী।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, সরকারের ধারাবাহিকতা থাকলে দেশের উন্নয়ন ত্বরান্বিত হয়, এটা আজ আপনারা দেখতে পাচ্ছেন। আগামীতে আওয়ামী লীগ আবারো ক্ষমতায় আসলে দেশের উন্নয়ন আরো ত্বরান্বিত হবে। দেশ ২০২১ সালের মধ্যে মধ্যম আয়ের এবং ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত সমৃদ্ধ দেশে পরিণত হবে

ভিডিও কনফারেন্সে গণমাধ্যম প্রান্তে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সঙ্গে ছিলেন স্থানীয় সরকারমন্ত্রী খন্দকার মোশাররফ হোসেন এবং স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন, প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব।

মৌচাক এলাকা থেকে ভিডিও কনফারেন্সে গণভবনের সঙ্গে সংযুক্ত ছিলেন, বেসামরিক বিমান ও পর্যটনমন্ত্রী রাশেদ খান মেনন, খাদ্যমন্ত্রী কামরুল ইসলাম, ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) মেয়র সাঈদ খোকন, স্থানীয় সংসদ সদস্য সাবের হোসেন চৌধুরী, ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া, ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের প্যানেল মেয়র মো. ওসমান গণি, ঢাকা মহানগর (দক্ষিণ) আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহে আলম মুরাদসহ আওয়ামী লীগের নেতাকর্মী ও প্রকল্প সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা।

উল্লেখ্য, রাজধানীর মগবাজার-মৌচাক-মালিবাগ-শান্তিনগর ও তেজগাঁওয়ের যানজট নিরসন ও এই এলাকায় অবাধ যান চলাচল নিশ্চিত করতে ২০১১ সালে মগবাজার-মৌচাক ফ্লাইওভার প্রকল্পটি গ্রহণ করে সরকার। পরে ২০১৩ সালের ১৬ ফেব্রুয়ারি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মগবাজার-মৌচাক ফ্লাইওভারের নির্মাণ কাজের উদ্বোধন করেছিলেন।

এর পরে ধাপে ধাপে নকশা পরিবর্তন ও নির্মাণ ব্যয় বাড়তে থাকে এ প্রকল্পের। প্রথমে ২০১৪ সালের মধ্যে এ ফ্লাইওভারের কাজ শেষ হওয়ার কথা থাকলেও বিভিন্ন জটিলতায় ধাপে ধাপে মেয়াদও বাড়তে থাকে প্রকল্পের। সবশেষে সম্পূর্ণরূপে বৃহস্পতিবার উদ্বোধন হলো এ ফ্লাইওভার।


মতামত জানান :

 
 
আরও পড়ুন
 
কপিরাইট © ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | উন্নয়নে হোস্টপিও.কম