সংবাদ শিরোনাম

 

নিজস্ব প্রতিবেদক : সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর বলেছেন, দেশে একাত্তরের পরাজিত শক্তিই পঁচাত্তরে বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর থেকে বিভিন্ন নামে-বেনামে জঙ্গিবাদী নাশকতায় লিপ্ত রয়েছে।

তিনি বলেন, এদেশের হাজার বছরের সংস্কৃতিকে ধ্বংস করে দেশকে জঙ্গিবাদী রাষ্ট্রে পরিণত করতে চায় তারা। এই অরাজকতা থেকে আমাদের সন্তানদের সুস্থ ধারার সংস্কৃতিতে উদ্বুদ্ধ করতে হবে।

শনিবার দুপুরে জয়পুরহাটের পাচঁবিবি স্টেডিয়ামে উত্তরবঙ্গ সাংস্কৃতিক উৎসবের উদ্বোধনী সভায় এসব কথা বলেন সংস্কৃতিমন্ত্রী।

তিনি বলেন, যারা জঙ্গিবাদের মতো হিংসাত্মক কাজ করে, সংস্কৃতিকর্মীরা তাদের এসব কাজ থেকে বিরত রাখতে পারে, ভুল পথে যাওয়া ছেলে-মেয়েদের ঠেকানোর একটি মাধ্যম হচ্ছে সংস্কৃতি।

সাংস্কৃতিক সংগঠন ধরিত্রী বাংলাদেশের আয়োজনে আজ থেকে তিন দিনব্যাপী সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ প্রতিরোধ বিষয়ক সাংস্কৃতিক উৎসবের আলোচনাসভা শুরু হয়।

স্থানীয় সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট শামছুল আলম দুদুর সভাপতিত্বে এতে বক্তব্য রাখেন- ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক অধ্যাপক ড. অজয় রায়, শেখ মুজিবর রহমান জাদুঘরের কিউরেটর এনআই খান, সাংস্কৃতিক সংগঠন ধরিত্রী বাংলাদেশের সম্পাদক ড. হারুন-অর-রশীদ, জেলা প্রশাসক মোকাম্মেল হক, পুলিশ সুপার রশীদুল হাসান, সাংস্কৃতিক উৎসব উদযাপন পরিষদের আহ্বায়ক আমিনুল হক বাবুল ও সদস্যসচিব মেয়র হাবিবুর রহমান হাবিব প্রমুখ।

সাংস্কৃতিক উৎসবে উত্তরবঙ্গের ১৬ জেলার ২ শতাধিক সাংস্কৃতিককর্মীরা অংশগ্রহণ করবেন। উৎসবে রবীন্দ্র সংগীত, নজরুল সংগীত, ভাটিয়ালী, বাউলগান, লালনগীতি, কবিগান, পুঁথিপাঠ, আদিবাসী নৃত্য ও নাটক অনুষ্ঠিত হবে।


মতামত জানান :

 
 
আরও পড়ুন
 
কপিরাইট © ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | উন্নয়নে হোস্টপিও.কম