সংবাদ শিরোনাম

 

নারায়নগঞ্জ প্রতিনিধি : ঢাকায় সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে বিএনপির সমাবেশকে কেন্দ্র করে নারায়ণগঞ্জে সকল প্রকারের গণপরিবহন বন্ধ রয়েছে। তবে ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ ট্রেন চলাচল করলেও নির্ধারিত সময়েরও কোন ট্রেন ছাড়েনি। ফলে দেখা দিয়েছে সিডিউল বিপর্যয়।

রবিবার (১২ নভেম্বর) সকাল থেকেই নারায়ণগঞ্জে এমন দৃশ্য দেখা যায়। কার্যত হরতালে পরিনত হয় নারায়ণগঞ্জ শহর। সকাল থেকেই দেখা যায় শহরের প্রধান প্রধান সড়কগুলো ফাঁকা।

এদিকে সকল গণপরিবহন বন্ধ থাকলেও শীতল এসি বাস পরিবহন চালু রয়েছে। সকাল থেকেই শীতলের বাসগুলো শহরের মেট্রো হল ও চাষাঢ়া কাউন্টার থেকে ছেড়ে যাচ্ছে।

একাধিক যাত্রী অভিযোগ করে বলেন, সকাল থেকে প্রয়োজনীয় কাজে ঢাকা যাবার জন্য অপেক্ষা করলেও কোন গণপরিবহন তিনি পাননি। উপায় না পেয়ে তিনি ট্রেনে ঢাকা যাবার জন্য অপেক্ষা করছেন। কিন্তু ট্রেনও নির্ধারিত সময়ের চেয়ে দেরিতে ছাড়ছে।

জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক মাসুকুল ইসলাম রাজীব জানান, সকাল থেকেই সমাবেশে দলের নেতাকর্মী ও সাধারন মানুষ ঢাকামুখী হবে এমন ভয়েই সরকার আগেই সকল কিছু বন্ধ করে দিয়েছে। এ ধরনের কর্মকাণ্ড করে সমাবেশে মানুষ কমানো যাবেনা বরং কর্মজীবী মানুষের দূর্ভোগ বৃদ্ধি করা হবে।

মহানগর যুবদলের আহবায়ক মাকসুদুল আলম খন্দকার খোরশেদ জানান, বিএনপির সমাবেশ পন্ড করার জন্য সরকার গণপরিবহন বন্ধ করে দিয়ে প্রমান করেছে তারা মানুষের বাক স্বাধীনতায় বিশ্বাস করে না। তবে মনে রাখা দরকার বাস বন্ধ করে দিয়ে সমাবেশে জনসমাগম রোধ করা যাবে না।


মতামত জানান :

 
 
আরও পড়ুন
 
কপিরাইট © ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | উন্নয়নে হোস্টপিও.কম