| |

সর্বশেষঃ

/ রকমারি

এরশাদের মরদেহ রংপুর নেওয়া হবে মঙ্গলবার, দাফন ঢাকায়

জুলাই ১৪, ২০১৯

নিজস্ব প্রতিবেদক : সদ্য প্রয়াত সাবেক রাষ্ট্রপতি ও জাতীয় পার্টির (জাপা) চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের প্রথম জানাজা ঢাকা সেনানিবাস কেন্দ্রীয় মসজিদে অনুষ্ঠিত হবে বলে জানিয়েছেন পার্টির মহাসচিব মশিউর রহমান রাঙ্গা।আর নিজ এলাকা রংপুরে নেওয়া হবে মঙ্গলবার (১৬ জুলাই)। ওইদিন আবার ঢাকায় এনে সামরিক কবরস্থানে তার দাফন সম্পন্ন হবে। রোববার (১৪ জুলাই) সকালে ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) সাংবাদিকদের এসব কথা জানান। তিনি বলেন, রোববার বাদ জোহর সেনানিবাসের কেন্দ্রীয় জামে মসিজিদে সাবেক সেনাপ্রধানের জানাজা হবে। এরপর তার মরদেহ রাখা হবে সিএমএইচের হিমঘরে। জাপা মহাসচিব রাঙ্গা বলেন, সাবেক রাষ্ট্রপতি হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের দ্বিতীয় জানাজা...

এরশাদের প্রথম জানাজা অনুষ্ঠিত

জুলাই ১৪, ২০১৯

নিজস্ব প্রতিবেদক : জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান ও সংসদের বিরোধীদলীয় নেতা সাবেক রাষ্ট্রপতি হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের প্রথম জানাজা ঢাকা সেনানিবাস কেন্দ্রীয় মসজিদে অনুষ্ঠিত হয়েছে। রোববার দুপুর ১টা ৫০ মিনিটে এ জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। ধর্মীয় শিক্ষক মাওলানা আহসান হাবীব জানাজা পড়ান। জানাজায় অংশ নেন সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদ, জাতীয় পার্টির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান গোলাম মোহাম্মদ কাদের, দলটির সাবেক মহাসচিব এ বি এম রুহুল আমিন হাওলাদার, ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আতিকুল ইসলামসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতা ও সশস্ত্র বাহিনীর ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা। এর আগে সকাল পৌনে ৮টার ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) চিকিৎসাধীন অবস্থায় শেষ...

এরশাদের লাশ রংপুর নেওয়া হবে মঙ্গলবার

জুলাই ১৪, ২০১৯

নিজস্ব প্রতিবেদক : সদ্য প্রয়াত জাতীয় পার্টির (জাপা) চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের লাশ রংপুরে নেওয়া হবে আগামী মঙ্গলবার। সেদিন রংপুর জেলা স্কুল মাঠে তার নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত হবে। জানাজা শেষে লাশ ঢাকায় এনে সামরিক কবরস্থানে তাকে দাফন করা হবে। রবিবার সকালে ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) সাংবাদিকদের এসব কথা জানান জাতীয় পার্টির মহাসচিব মশিউর রহমান রাঙ্গা। রাঙ্গা জানান, ঢাকায় দাফনের আগে জাপা চেয়ারম্যানের লাশ হেলিকপ্টারে করে মঙ্গলবার সকাল ১০টায় তার নির্বাচনী এলাকা রংপুরে নেওয়া হবে। সেখানে রংপুরের সর্বস্তরের মানুষ তাদের প্রিয় নেতাকে শেষ শ্রদ্ধা জানাবেন। বাজ জোহর রংপুর জেলা স্কুল মাঠে তার নামাজে জানাজা হবে। এরপর ঢাকায় আনা...

সামরিক কবরস্থানে শায়িত হবেন এরশাদ

জুলাই ১৪, ২০১৯

নিজস্ব প্রতিবেদক : জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান ও সাবেক রাষ্ট্রপতি এইচ এম এরশাদকে বনানীর সামরিক কবরস্থানেই দাফন করা হবে। স্ত্রী রওশন এরশাদ ও এরশাদের ভাই জি এম কাদের সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান। দাফনের আগে এরশাদের চারটি জানাজা হবে। এর মধ্যে তিনটি জানাজা হবে ঢাকায় আর অন্যটি হবে রংপুর জেলা স্কুলে। এর আগে মৃত্যুর আগেই দলটির প্রেসিডিয়াম সদস্যদের বৈঠকে এরশাদের দাফন নিয়ে কয়েক দফা আলোচনা হয়। সেখানে কোথায় দাফন করা হবে তা নিয়ে মতবিরোধও হয়। কেউ চেয়েছিলেন রংপুরের পল্লীনিবাসে তার সমাধি করা হোক। আবার অনেকে এই প্রস্তাবের বিরোধীতা করে পাবলিক প্লেসে (আজিমপুর অথবা অন্য কোথাও) জায়গা কিনে সেখানে এরশাদের কবর করার পক্ষে মত দেন। যদিও কয়েকজন প্রেসিডিয়াম সদস্য বলেছিলে,...

এরশাদকে দেখতে না পারার আক্ষেপ বিদিশার

জুলাই ১৪, ২০১৯

নিজস্ব প্রতিবেদক : রবিবার সকালে প্রয়াত হয়েছেন সাবেক রাষ্ট্রপতি ও জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান এইচ এম এরশাদ। তার মৃত্যুতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে আবেগঘন একটি স্ট্যাটাস দিয়েছেন তার সাবেক স্ত্রী বিদিশা এরশাদ। স্ট্যাটাসে এরশাদকে দেখতে না পারার জন্য আক্ষেপ করেন বিদিশা। বর্তমানে আমজীর শরীফে অবস্থানরত বিদিশা ফেসবুকে লিখেছেন, ‘এ জন্মে আর দেখা হলো না। আমিও আজমীর শরীফ আসলাম আর তুমিও চলে গেলে। এতো কষ্ট পাওয়ার থেকে মনে হয় এই ভালো ছিল। আবার দেখা হবে হয়তো অন্য এক দুনিয়াতে যেখানে থাকবে না কোনো রাজনীতি।’ রবিবার সকালে ঢাকা সিএমএইচে চিকিৎসাধীন অবস্থায় না ফেরার দেশে চলে যান ৯০ বছর বয়সী এরশাদ। দীর্ঘদিন ধরেই তিনি বার্ধক্যজনিত রোগসহ নানা রোগে ভুগছিলেন।...

সেনা কর্মকর্তা থেকে ক্ষমতাধর রাষ্ট্রপতি

জুলাই ১৪, ২০১৯

বিশেষ সংবাদদাতা : ১৯৫২ সালে পাকিস্তান সেনাবাহিনীতে অফিসার পদে যোগ দেন ভারতের কুচবিহার জেলার দিনহাটায় এক সম্ভ্রান্ত পরিবারে জন্ম নেয়া হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ। সাধারণ এক সেনা অফিসার থেকে ৩১ বছরে বনে যান বাংলাদেশের সবেচেয়ে ক্ষমতাধর রাষ্ট্রপতি। ১৯৭৮ সালের ডিসেম্বর মাসে এরশাদ সেনাবাহিনী প্রধান পদে নিযুক্ত হন। ১৯৭৯ সালে তিনি লেফটেন্যান্ট জেনারেল পদে পদোন্নতি লাভ করেন। আর ১৯৮৩ সালের ১১ ডিসেম্বর তৎকালীন রাষ্ট্রপতি আহসানউদ্দিন চৌধুরীকে অপসারণ করে রাষ্ট্রপতির দায়িত্ব গ্রহণ করেন এইচ এম এরশাদ। তারপর আর তাকে পেছনে ফিরে তাকাতে হয়নি। রাষ্ট্রপতি হওয়ার পর দেশের শীর্ষ রাজনীতিক হওয়ার অভিলাষ পুরণ করতে গিয়ে তিনি গঠন করেন রাজনৈতিক দল জনদল।...