| |

সর্বশেষঃ

  • মুজিব বর্ষ

/ সাহিত্য

বইমেলায় অশনি সংকেত

ফেব্রুয়ারি ১৯, ২০২০

বিশেষ সংবাদদাতা : একটু ভেবে দেখুন, দিন শেষে প্রকাশক কিন্তু টাকা কামাতেই চান। সাহিত্যসেবা-টেবা সব ছেঁদো বুলি, আমরা সবাই টাকার গোলাম। তাতে হয় কি, সাহিত্যের মানের বিষয়ে কেউ খুব একটা মাথা ঘামান না, লেখক-প্রকাশক উভয়েই চান বাজার-কাটতি বই লিখে বা ছেপে রাতারাতি নাম আর পয়সা কামাতে। মান নিয়ে মাথা ঘামিয়েও যে খুব একটা লাভ হবে তা তো নয়, বরং মান নির্ধারণ নিয়ে তখন আবার নতুন করে নাম-গান শুরু হবে। কারণ সাহিত্য বা লেখাটি মানসম্মত কি-না তা যাচাই করবে কে! কার এমন বুকের পাটা বা মগজে ধূসর পদার্থ আছে যিনি কি-না নির্মোহভাবে একটি লেখার পক্ষে বা বিপক্ষে রায় দেবেন! একটি উদাহরণ দেই, তাহলেই সবাই আমার পয়েন্টখানা দিব্যি বুঝতে পারবেন। আমি লিখি কুড়ি বছর ধরে। এটা-সেটা মেলা কিছু...

শিশুপ্রহরেও ছিল বাসন্তি আর লাল

ফেব্রুয়ারি ১৪, ২০২০

নিজস্ব প্রতিবেদক : প্রতিদিনের চেয়ে শুক্রবারের বইমেলা একটু অন্যরকম হয়। কারণ এদিন মেলায় শিশুদের জন্য থাকে বিশেষ আয়োজন। তার ওপর বাড়তি হিসেবে ছিল বসন্তের প্রথম দিন ও বিশ্ব ভালোবাসা দিবস। তাইতো লাল-হলুদে সেজে বাবা-মায়ের হাত ধরে শিশুপ্রহরে এসেছিল তারা। তাদের সাজগোজই বলে দিচ্ছিল আজ বিশেষ দিন। শুক্রবার বেলা ১১টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত শিশুরা মেতে ছিল হালুম, টুকটুকি, ইকরি-মিকরির আর শিকুর সঙ্গে। ৫ বছরের আকৃতি সূত্রধর বাবা স্বপন কুমারের হাত ধরে মেলায় এসেছিল। তার সঙ্গে ছিল ১০ বছরের বোন সৃষ্টি সূত্রধর। শিশুপ্রহরে এসে সিসিমপুরের স্টল থেকে বই কিনেছে। আকৃতির পছন্দ শিশুপাঠ আর ড্রয়িং বুক। আর সৃষ্টিকে কিনেছে ঠাকুর মার ঝুলি আর আদর্শ লিপি। পেশায় শিক্ষক...

বইমেলায় বসন্তের ছোঁয়া

ফেব্রুয়ারি ১৩, ২০২০

বিশেষ সংবাদদাতা : বসন্তের আগমনী বাতাসে আন্দোলিত অমর একুশে গ্রন্থমেলা। লেখক-পাঠকের পদচারণায় বইমেলা এখন প্রাণবন্ত। বুধবার (১২ ফেব্রুয়ারি) মেলাপ্রাঙ্গণ ঘুরে এমন চিত্র দেখা গেছে। বাসন্তি সাজে ও ফুলে ফুলে ছেয়ে গেছে বইমেলা। এই বাসন্তী সাজের আমেজ দোলা লেগেছে বইমেলাতেও। মেলায় সঞ্চারিত হয়েছে নতুন প্রাণ। মেলা ঘুরে দেখা যায়, শিশু থেকে প্রবীণদের পদচারণায় মুখর হয়ে উঠেছে বইমেলা। কেউ পরিবার, কেউ প্রিয়জন এমনকি বন্ধুদের সঙ্গে দলবেঁধে মেলায় আসছেন। কেউ স্টলে স্টলে ঘুরছেন, কেউ বই কিনছেন আবার কেউবা প্রিয়জনের সঙ্গে কিছু সময় কাটানোর জন্য এসেছেন বইমেলায়। আবার অনেক লেখক পাঠকের তুমুল আড্ডাও দেখা গেছে মেলার বিভিন্ন প্রান্তে। বিক্রেতা ও প্রকাশকদের সঙ্গে...

জমে উঠছে বইমেলা

ফেব্রুয়ারি ০৯, ২০২০

নিজস্ব প্রতিবেদক : সপ্তাহ পেরিয়ে বইমেলা এখন আরো নতুন, আরো জমজমাট। দিন যতই যাচ্ছে, প্রতিদিনই মেলায় বাড়ছে বইপ্রেমীদের আনাগোনা। তবে বই কেনা বা বই বিক্রির বাইরে এসে বইমেলা এবছর সত্যিকার অর্থেই মেলা হয়ে উঠেছে। যেখানে শুধু বই কেনাবেচার বাইরেও মেলায় আসা দর্শনার্থীদের জন্য ভিন্ন কিছু আয়োজন রেখেছে মেলা কর্তৃপক্ষ। রোববার (৯ ফেব্রুয়ারি) মেলা ঘুরে দেখা যায়, এবারের বইমেলার সবচেয়ে ভালো দিকটি হচ্ছে মেলা চত্বরজুড়েই সুন্দর বসবার ব্যবস্থা করা হয়েছে। রয়েছে খাবারের স্টল যেখানে সাশ্রয়ী দামে মিলছে খাবার। এছাড়া ইট বিছানো প্রশস্ত পথে সবাই স্বাচ্ছন্দ্যে হাঁটতে পারছেন। আর বই কেনার পাশাপাশি বসে জিরিয়েও নিতে পারছেন পাঠক-দর্শনার্থীরা। এবার ‘মুজিববর্ষ’ উপলক্ষে...

বইমেলায় জমে উঠেছে শিশুপ্রহর

ফেব্রুয়ারি ০৮, ২০২০

নিজস্ব প্রতিবেদক : প্রথম প্রহরেই জমে উঠেছে বইমেলার দ্বিতীয় শিশু প্রহর। প্রথম প্রহরেই বিভিন্ন বয়সী শিশুরা স্টল ঘুরে ঘুরে বইয়ের পাতা উল্টে নিজেদের পছন্দের বই খুঁজছে। স্টলের পাশে থাকা কয়েকটি খেলাধুলার স্পটেও তাদের মধ্যে বেশ উচ্ছ্বাস লক্ষ্য করা গেছে। শনিবার (৮ ফেব্রুয়ারি) অমর একুশে গ্রন্থমেলার শিশু প্রহরের দ্বিতীয় দিন। এদিন সকাল ১১টা থেকে শিশু-কিশোরদের ভিড় সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের প্রবেশ গেটে। কেউবা বাবা-মায়ের হাত ধরে, কেউবা বন্ধুদের সঙ্গে আবার কেউবা শিক্ষকদের সঙ্গে এসেছে প্রাণের মেলায়। মেলা ঘুরে দেখা গেছে, মেলার সোহরাওয়ার্দী উদ্যান অংশে ছোটদের মজার মজার সব বইয়ের স্টল এবং বিনোদন কেন্দ্র নিয়ে সাজানো হয়েছে শিশু চত্বর। শিশু চত্বরে প্রবেশ...

মুজিববর্ষের কাব্যগ্রন্থ

ফেব্রুয়ারি ০৬, ২০২০

নিজাম মল্লিক নিজু একাত্তরটি স্তবকবক ছত্রে কবি মোহাম্মদ জাফর সাদেক তার একাত্তরতম অর্থ্যাৎ শেষ ছত্রে লিখলেন- আমি ক্ষুদ্র জ্ঞান এক নগণ্য কবি, আমার কবিতা তোমার জন্য পু®পস্তবক গাঁথি, এতো সাধ্য কি হয় ? তবুও বড় সাধ জাগে তোমাকে ভালবেসে পিতা- আমাকে চিনি, ঘোষণা করি আমার আত্মপরিচয়… সাত মার্চ উনিশ্য একাত্তর। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর সেই অবিনাশী ভাষণের প্রতিটি লাইনের, প্রতিটি শব্দের প্রতিটি প্রতিটি বর্ণের উত্তর খুঁজে বেরিয়েছেন কবি জাফর’ সাদেক তার একাত্তরের মহাকবি কাব্যগ্রন্থে। কিন্তু কবির স্বপ্নসাধ ভাঙেনি একটুও বরং শেষতক তার আত্মপরিচয় গর্বিত অহংকার নিয়ে ফিরে পেলেন ঘোষণা করলেন মুজিব…মুজিব আত্মসমর্পিত হলেন, নতজানু হলেন পিতার কাছে। যে পিতার...